বাংলাদেশ

ফণি : উদ্ধার ও ত্রাণ কাজে প্রস্তুত বিমান

ঘূর্নিঝড় ফণি আঘাত হানলে উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর পরিবহন বিমান ও হেলিকপ্টারসমূহ। বিমান বাহিনী ঘাঁটি বাশারে খোলা হয়েছে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কেন্দ্র।

শুক্রবারে রাতে আইএসপিআর এর সহকারী পরিচালক মো. নূর ইসলাম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বিমান বাহিনী ঘাঁটি বঙ্গবন্ধু, কুর্মিটোলায় পরিবহন বিমান সি-১৩০ এবং এএন-৩২ ঘূর্নিঝড় পরবর্তী উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতা পরিচালনার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

ঘূর্নিঝড় আক্রান্ত জনগণের তাৎক্ষনিক প্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রী বিতরণের জন্য তিনটি এএন-৩২ বিমান প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এছাড়া দুটি এমআই-১৭ এবং দুটি এডব্লিউ-১৩৯ হেলিকপ্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ, ত্রাণ বিতরণ ও মেডিক্যাল ইভাকুয়েশনের জন্য। মেডিক্যাল ইভাকুয়েশনের জন্য ৩টি এল-৪১০ বিমানও প্রস্তুত রয়েছে।

এছাড়া তিনটি টিম প্রস্তুত রাখা হয়েছে দুর্যোগপূর্ণ এলাকায় উদ্ধার অভিযান পরিচালনার জন্য। অন্যান্য হেলিকপ্টারও প্রস্তুত রয়েছে প্রয়োজনীয় মূহূর্তে ব্যবহারের জন্য।

তিনটি এএন-৩২ বিমানের মাধ্যমে প্যারাসুটের সাহায্যে দুর্যোগপূর্ণ এলাকায় বিতরণের জন্য ১৫০০ প্যাকেট ত্রাণ প্রস্তত রাখা হয়েছে। এদিকে বিমান বাহিনী ঘাঁটি মতিউর রহমান বরিশাল বিমান বন্দরে প্রয়োজনীয় জনবল ও বিমান মোতায়েনের জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *