রাজনীতি

বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন এরশাদ ও খালেদার ‘ভ্যাকেশন’ নেই

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেছেন, এইচএম এরশাদের জাতীয় পার্টি ও খালেদা জিয়ার বিএনপির ছাত্র সংগঠনগুলোর তাণ্ডবলীলার কারণে একসময় দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভ্যাকেশন (ছুটি) থাকত। কিন্তু শেখ হাসিনার সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো ভালো চলছে।

তিনি বলেন, ‘একসময় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে এরশাদ ভ্যাকেশন, খালেদা ভ্যাকেশন দেখেছি। তাদের ছাত্র সংগঠনগুলোর তাণ্ডবলীলা দেখেছি। কিন্তু শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সময়ে গত বছরে একদিনের জন্যও বন্ধ হয়নি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। দেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন আর এরশাদ ভ্যাকেশন, খালেদা ভ্যাকেশন হয় না।’

শুক্রবার ঢাবির অমর একুশে হল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত দ্বিতীয় পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় উপমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম বলেন, ‘শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে সন্ত্রাস ও তাণ্ডবের কেন্দ্রবিন্দু হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেননি। বরং সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সাথে আমাদের কোনো নেতা-কর্মী বিন্দুমাত্র জড়িত হলেও আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি।’

নিজের ছাত্রজীবনের রাজনীতির কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, ‘আমি যেদিন জাকসু’র ভিপি নির্বাচিত হই তার আগের রাতেও আমার বিছানাপত্রে আগুন দিয়েছিল তৎকালীন সরকারের ছাত্রসংগঠনের নেতারা। কিন্তু কখনো আমাদেরকে ছাত্র-ছাত্রীদের মন থেকে দূরে রাখতে পারেনি। তাই বিপুল ভোটের ব্যবধানে আমি ভিপি নির্বাচিত হয়েছিলাম।’

উপমন্ত্রী ছাত্রদের দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে হলের ১০ আবাসিক ছাত্রের মাঝে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে নগদ অর্থ সহায়তা দেয়া হয়।

এর আগে ঢাবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান পুনর্মিলনীর আয়োজনের উদ্বোধন করেন।

অমর একুশে হলের সাবেক ছাত্র ও ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এইচএম বদিউজ্জামান সোহাগের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম, হলের সাবেক ছাত্র ও ভূতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *